মানুষের একাধিক সঙ্গী/সঙ্গিনীর প্রতি আকৃষ্ট হওয়া কি স্বাভাবিক? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

0 টি ভোট
1,076 বার দেখা হয়েছে
"লাইফ" বিভাগে করেছেন (1,040 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন

3 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (9,280 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

সাধারণভাবে যৌন সম্পর্ককে আমরা দুইটা ক্যাটেগরিতে রাখতে পারি। যথাঃ

 

১। মনোগ্যামি রিলেশন।

২।পলিগ্যামি রিলেশন।

 

যৌন জীবনে একাধিক সঙ্গীর পরিবর্তে, একই সাথে কেবল একজন সঙ্গীর সাথে সম্পর্ক স্থাপন করাকে মনোগ্যামি বলে। একটি মনোগ্যামাস সম্পর্ক হতে পারে শারীরিক অথবা আবেগপূর্ণ। তবে এটি সচরাচর আবেগ এবং শারীরিক চাহিদা উভয়ের সমন্বয়েই গড়ে উঠে। অপরদিকে পলিগ্যামি সম্পর্ক হলো একই সাথে একাধিক সঙ্গী/সঙ্গিনীর সাথে সম্পর্ক স্থাপন। 

 

একটা প্রাণি তার যৌন জীবনে মনোগ্যামাস (মনোগ্যামি রিলেশন মেনে চলে) নাকি পলিগ্যামস হবে সেটার পেছনে জিনগত এবং সামাজিক এই উভয়ক্ষেত্রেই ভূমিকা আছে (আজকে আর বিস্তারিত আলোচনা করছিনা)। 

 

যাইহোক মানুষেরা সামাজিকভাবে মনোগ্যামাস হলেও জেনেটিক্যালি পলিগ্যামাস।

 

কথাটা নারী পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। তাই আপনি একজনকে বিয়ে করে সারাজীবন তার সাথে সংসার করলেও প্রায়সময়েই অন্যদের ভালো লাগে। এটা আমাদের জিনগত বৈশিষ্ট্য। 

 

তবে সামাজিকতা এবং নৈতিকতার কারণে বর্তমানে বেশির মানুষ একই সাথে একজনের সাথেই সংসার জীবনে আবদ্ধ হয়। তবে একসময় বহুবিবাহের প্রচুর প্রচলন ছিলো। এমনকি একজন নারী একই সাথে একাধিক পুরুষকে স্বামী হিসেবে গ্রহণ করতো যা পলিগ্যামি রিলেশনের উদাহরণ। তবে আবারো একটাই কথা বলছি যে কোনো রিলেশন মনোগ্যামি  হবে নাকি পলিগ্যামি সেটা একই সাথে সামাজিকতা এবং জেনেটিক্স এই দুইটা বিষয়ের উপর নির্ভর করে। 

তবে দিনশেষে মূল কথা হলো "পলিগ্যামাস" হওয়া আমাদের জিনগত বৈশিষ্ট্য। তাই একাধিক নারীর প্রতি যৌন আকাঙখার বিষয়টি অস্বাভাবিক নয়। তবে এই বিষয়টাকে একটা সমাজ কিভাবে নিবে সেটা ভিন্ন বিষয়। সম্পর্কের ক্ষেত্রে একেক সমাজে একেক রকম রীতি প্রচলিত আছে।  

0 টি ভোট
করেছেন (1,040 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
0 টি ভোট
করেছেন (1,040 পয়েন্ট)
হ্যাঁ!

মানুষ সৃষ্টিগতভাবে পলিগ্যামাস।(পলিগ্যামাস অর্থ একাধিক সঙ্গী/সঙ্গিনীর প্রতি আকর্ষি)।নারী পুরুষ উভয়েই সৃষ্টিগতভাবে একাধিক সঙ্গী/সঙ্গিনীর প্রতি আকর্ষিত হয়।শুধু মানুষ নয়...এটি অধিকাংশ প্রাণীরই স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্য!তবে পরবর্তীতে মানুষ সমাজবদ্ধ হওয়ার পর তাদের মধ্যে এই বহু-আকর্ষণের প্রবণতা বহু অংশেই হ্রাস পায় এবং তারা মনোগ্যামাস(একই সঙ্গী/সঙ্গীনীর সাথে জীবন পার করার প্রবণতা) হয়ে ওঠে।

তাই বলা যায়..মানুষের একাধিক সঙ্গী/সঙ্গিনীর প্রতি আকৃষ্ট হওয়া স্বাভাবিক!

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+4 টি ভোট
1 উত্তর 404 বার দেখা হয়েছে
+1 টি ভোট
1 উত্তর 1,578 বার দেখা হয়েছে
0 টি ভোট
2 টি উত্তর 599 বার দেখা হয়েছে
0 টি ভোট
1 উত্তর 560 বার দেখা হয়েছে

10,744 টি প্রশ্ন

18,397 টি উত্তর

4,731 টি মন্তব্য

243,977 জন সদস্য

20 জন অনলাইনে রয়েছে
0 জন সদস্য এবং 20 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. MIS

    990 পয়েন্ট

  2. shuvosheikh

    320 পয়েন্ট

  3. তানভীর রহমান ইমন

    160 পয়েন্ট

  4. unfortunately

    120 পয়েন্ট

  5. Muhammad_Alif

    120 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো #ask মোবাইল ক্ষতি চুল কী চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য প্রযুক্তি #science স্বাস্থ্য প্রাণী বৈজ্ঞানিক মাথা গণিত মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #biology বিজ্ঞান খাওয়া গরম শীতকাল #জানতে কেন ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ ঠাণ্ডা মস্তিষ্ক শব্দ ব্যাথা ভয় বাতাস স্বপ্ন তাপমাত্রা গ্রহ রসায়ন উদ্ভিদ কালো পা কি বিস্তারিত রঙ মন পাখি গ্যাস সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম হরমোন বিড়াল কান্না
...