লোহাকে কেন স্টার কিলার বলা হয়? - ScienceBee প্রশ্নোত্তর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির প্রশ্নোত্তর দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম! প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে জিতে নিন পুরস্কার, বিস্তারিত এখানে দেখুন।

0 টি ভোট
234 বার দেখা হয়েছে
"জ্যোতির্বিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (8,570 পয়েন্ট)

2 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন (8,570 পয়েন্ট)
সাধারণত মহাবিশ্বের নক্ষত্রগুলো হাইড্রোজেন দিয়ে তৈরী। এই হাইড্রোজেন নিউক্লিয়ার ফিউশন বিক্রিয়ায় হিলিয়ামে পরিণত হয়। এরপর হিলিয়াম থেকে কার্বন, কার্বন থেকে নিয়ন, নিয়ন থেকে অক্সিজেন, সেখান থেকে সিলিকন এবং সবশেষে আয়রন তৈরি হয়। কিন্তু আয়রন বা লোহা তৈরির সময় যেই পরিমাণ শক্তি প্রয়োজন হয়, আয়রনের ফিউশনের পর সেই পরিমাণ শক্তির চেয়ে কম শক্তি উৎপন্ন হয়। এভাবেই আয়রন বা লোহার ফিউশনের মাধ্যমে নক্ষত্রের ফিউশনের সমাপ্তি ঘটে এবং নক্ষত্রটি রেড সুপারজায়ান্টে পরিণত হয়। তারপর, রেড সুপারজায়ান্ট একসময় বিস্ফোরিত হয়ে সুপারনোভা ঘটায়। এই কারণেই লোহাকে স্টার কিলার বলা হয়।
+1 টি ভোট
করেছেন (5,600 পয়েন্ট)
লোহাকে "স্টার কিলার" বলা হয় কারণ এটি একটি তারার জীবনের শেষের দিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

একটি তারা তার জীবনের শুরুতে হাইড্রোজেনকে হিলিয়ামে রূপান্তর করে শক্তি উৎপন্ন করে। এই প্রক্রিয়াটিকে ফিউশন বলা হয়। যখন একটি তারা তার হাইড্রোজেন জ্বালানী শেষ হয়ে যায়, তখন এটি হিলিয়ামকে কার্বনে রূপান্তর করতে শুরু করে। এই প্রক্রিয়াটিও ফিউশন দ্বারা পরিচালিত হয়।

যখন একটি তারা কার্বন জ্বালানী শেষ করে, তখন এটি আরও ভারী উপাদানগুলিকে রূপান্তর করতে শুরু করে। এই প্রক্রিয়াটি আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে ওঠে এবং অবশেষে, একটি তারা লোহাকে রূপান্তর করতে শুরু করে।

লোহা হল সবচেয়ে ভারী উপাদান যা ফিউশন দ্বারা স্থিতিশীলভাবে উৎপন্ন হতে পারে। এর মানে হল যে একটি তারা লোহাকে রূপান্তর করার পরে, এটি আর শক্তি উৎপন্ন করতে পারে না।

একবার একটি তারা লোহাকে রূপান্তর করতে শুরু করলে, এটি দ্রুত ঠান্ডা হয়ে যায় এবং সংকুচিত হয়। এই সংকোচন এতটাই তীব্র যে এটি একটি বিস্ফোরণের দিকে পরিচালিত করে। এই বিস্ফোরণকে সুপারনোভা বলা হয়।

সুপারনোভা হল মহাবিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী বিস্ফোরণ। এটি এতটাই শক্তিশালী যে এটি একটি তারাকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করতে পারে।

সুতরাং, লোহা হল একটি "স্টার কিলার" কারণ এটি একটি তারার জীবনের শেষের দিকে একটি পতনের কারণ হয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

+2 টি ভোট
3 টি উত্তর 1,112 বার দেখা হয়েছে
+9 টি ভোট
2 টি উত্তর 252 বার দেখা হয়েছে
+13 টি ভোট
3 টি উত্তর 540 বার দেখা হয়েছে
+1 টি ভোট
3 টি উত্তর 202 বার দেখা হয়েছে
27 ডিসেম্বর 2021 "জ্যোতির্বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rishad Ud Doula (5,760 পয়েন্ট)
+2 টি ভোট
2 টি উত্তর 586 বার দেখা হয়েছে

10,754 টি প্রশ্ন

18,418 টি উত্তর

4,734 টি মন্তব্য

246,594 জন সদস্য

328 জন অনলাইনে রয়েছে
2 জন সদস্য এবং 326 জন গেস্ট অনলাইনে
  1. shuvosheikh

    350 পয়েন্ট

  2. talal

    150 পয়েন্ট

  3. Preetom Porbo

    110 পয়েন্ট

  4. nahidemon

    110 পয়েন্ট

  5. Soyfa chakma

    110 পয়েন্ট

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উন্মুক্ত বিজ্ঞান প্রশ্নোত্তর সাইট সায়েন্স বী QnA তে আপনাকে স্বাগতম। এখানে যে কেউ প্রশ্ন, উত্তর দিতে পারে। উত্তর গ্রহণের ক্ষেত্রে অবশ্যই একাধিক সোর্স যাচাই করে নিবেন। অনেকগুলো, প্রায় ২০০+ এর উপর অনুত্তরিত প্রশ্ন থাকায় নতুন প্রশ্ন না করার এবং অনুত্তরিত প্রশ্ন গুলোর উত্তর দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। প্রতিটি উত্তরের জন্য ৪০ পয়েন্ট, যে সবচেয়ে বেশি উত্তর দিবে সে ২০০ পয়েন্ট বোনাস পাবে।


Science-bee-qna

সর্বাপেক্ষা জনপ্রিয় ট্যাগসমূহ

মানুষ পানি ঘুম পদার্থ - জীববিজ্ঞান এইচএসসি-উদ্ভিদবিজ্ঞান এইচএসসি-প্রাণীবিজ্ঞান পৃথিবী চোখ রোগ রাসায়নিক শরীর রক্ত আলো #ask মোবাইল ক্ষতি চুল কী চিকিৎসা পদার্থবিজ্ঞান সূর্য #science প্রযুক্তি স্বাস্থ্য প্রাণী গণিত বৈজ্ঞানিক মাথা মহাকাশ পার্থক্য এইচএসসি-আইসিটি #biology বিজ্ঞান খাওয়া গরম শীতকাল #জানতে কেন ডিম চাঁদ বৃষ্টি কারণ কাজ বিদ্যুৎ রাত রং উপকারিতা শক্তি লাল আগুন সাপ মনোবিজ্ঞান গাছ খাবার সাদা আবিষ্কার দুধ উপায় হাত মশা মাছ ঠাণ্ডা মস্তিষ্ক শব্দ ব্যাথা ভয় বাতাস স্বপ্ন তাপমাত্রা গ্রহ রসায়ন উদ্ভিদ কালো পা কি বিস্তারিত রঙ মন পাখি গ্যাস সমস্যা মেয়ে বৈশিষ্ট্য হলুদ বাচ্চা সময় ব্যথা মৃত্যু চার্জ অক্সিজেন ভাইরাস আকাশ গতি দাঁত আম হরমোন বাংলাদেশ বিড়াল
...